জাতীয় পর্যায়ে সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে সাপাহরের নিলয়

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০২:২৫ দুপুর
আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০২:২৫ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি : বাবা-মা’র ইচ্ছা পূরণে দেশাত্মবোধক গান গেয়ে জাতীয় পর্যায়ে পুরস্কার পেয়ে পরিবারের মুখ উজ্জ্বল করে একক প্রশংসা কুড়িয়েছেন নওগাঁর সাপাহার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী নাদের নিহাল নিলয়। 

জানা গেছে, শিক্ষা সপ্তাহ-২০২২ এ জাতীয় পর্যায়ে 'ক' বিভাগ (ষষ্ঠ থেকে অষ্টম) শ্রেণির দেশাত্মবোধক প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করেছিলেন নিলয়। সেখানে দেশাত্মবোধক গান গেয়ে সারা দেশের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে। এরপর থেকে তার পরিবার, স্কুলসহ এলাকার বিভিন্ন মহলে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হচ্ছে নিলয়। 

সাপাহার উপজেলা সদরের তালপুকুর পাড়া মহল্লার স্কুল শিক্ষক জাকারিয়া আলম ও শিক্ষিকা নিলুফা ইয়াসমিন দম্পতির ছোট ছেলে নাদের নিহাল নিলয়। নিলয়ের বাবা জাকারিয়া আলম উপজেলার বাদ দমদমা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং মা নিলুফা ইয়াসমিন গাঞ্জাকুড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। এই শিক্ষক দম্পতি তাদের পেশাগত দায়িত্ব পালন ও শত ব্যস্ততার মধ্যেও সন্তানের লেখাপড়াসহ সংস্কৃতির প্রতি বিশেষ যত্ন ও খেয়াল রেখেছেন। 

নাদের নিহাল নিলয়ের স্বপ্ন লেখাপড়া করে সে একজন প্রকৌশলী হবে। ছোট্ট ছেলে নিলয় বলেন, লেখাপড়ার পাশাপাশি বিনোদনের জন্য সময় পেলে খেলাধূলা ও গান শিখি। বাবার ইচ্ছে পূরণ করতেই আমি গান শিখেছি। বাবার ইচ্ছায় জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে গানের প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করি। আমার স্কুলের স্যারেরাও সাফল্য অর্জনে আমাকে অনেক সহযোগিতা করেছে। জেলা, বিভাগ এমনকি জাতীয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করার জন্য তারা আমাকে সাথে করে রাজধানী ঢাকাতেও নিয়ে গেছেন। আমার এই সাফল্যের জন্য আমি আমার বাবা-মা এবং শিক্ষকদের প্রতি চিরকৃতজ্ঞ। ভবিষ্যত জীবনে আমার প্রকৌশলী হওয়ার স্বপ্ন পূরণে আমি সকলের দোয়া চাই।

নিলয়ের বাবা শিক্ষক জাকারিয়া আলম বলেন, আমি আমার সন্তান নিলয়ের জন্য দোয়া করি, সে মুক্ত মনের অধিকারী ও একজন সাদা মনের মানুষ হোক। 

সাপাহার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শরীর চর্চা শিক্ষক (নিলয়ের শ্রেণি শিক্ষক) নজরুল ইসলাম বলেন, নিলয় একজন শান্ত ছেলে, লেখাপড়ায় খুব ভালো। তার গানের গলাও অনেক সুন্দর। জাতীয় পর্যায়ে শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত প্রতিযোগিতায় রাজধানী ঢাকায় সারাদেশের প্রতিযোগিদের মধ্যে সে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে। তার এই সাফল্য শুধু আমাদের স্কুলের জন্য নয় বরং পুরো উপজেলাবাসীর জন্য গর্বের বিষয়। এই সাফল্যে আমরা সকলেই গর্বিত। 

সাপাহার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাজেদুল আলম বলেন, আমরা লেখাপড়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষা দিয়ে সুশিক্ষিত করে গড়ে তোলার চেষ্টা করে আসছি। যাতে লেখাপড়া শেষ করে প্রত্যেক শিক্ষার্থীরা দেশের কল্যাণে কাজ করে যেতে পারে। নিলয় খুবই মেধাবী ছাত্র। তার অদম্য সাহস শিক্ষাকদের প্রচেষ্টা এবং তার বাবার ইচ্ছাশক্তি জাতীয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় এই সাফল্য এনে দিয়েছে। 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়