অনশন করেও বিয়ের দাবি পূরণ না হওয়ায়

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রেমিকের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০২:০৯ দুপুর
আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০২:০৯ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার ধুনট উপজেলায় বিয়ের প্রলোভনে প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে তার প্রেমিক রকি মিয়া (২০) নামে মাইক্রোবাসের এক চালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। রকি মিয়া উপজেলার পারধুনট গ্রামের জিল্লুর রহমানের ছেলে।

আজ বৃহস্পতিবার ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রবিউল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, স্কুলছাত্রীর জবানবন্দি রেকর্ড করার জন্য তাকে বগুড়া আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে বুধবার রাতে স্কুলছাত্রীর চাচা বাদি হয়ে রকি মিয়ার বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলার আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চালাপাড়া গ্রামের এক দিনমজুরের মেয়ে (১৫) স্থানীয় মাঠপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। মেয়েটির বাবা নারী নির্যাতনের একটি মামলায় প্রায় ৯ মাস ধরে বগুড়া জেলা কারাগারে আটক রয়েছে। আর মা ঢাকায় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করে। মেয়েটি একা গ্রামের বাড়িতে বসবাস করে। এ সুযোগে রকি মিয়া বিয়ের প্রলোভন দিয়ে মেয়েটির সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। 

এ অবস্থায় ১০ নভেম্বর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মেয়েটিকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে রকি মিয়া। পরে রকি মিয়াকে বিয়ের কথা বলে মেয়েটি। কিন্তু বিয়েতে রাজি না হয়ে ওই বাড়ি থেকে কৌশলে কেটে পড়ে রকি। এ কারণে ২২ নভেম্বর সন্ধ্যায় মেয়েটি বিয়ের দাবিতে রকির বাড়িতে অবস্থান নেয়। এ সময় রকি মিয়া বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। তখন নিরুপায় হয়ে মেয়েটির চাচা বাদি হয়ে রকি মিয়ার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়