রংপুরে এক নারী কারাবন্দির মৃত্যু

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০১:১৫ দুপুর
আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০১:১৫ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

মফস্বল ডেস্ক : রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাবানা বেগম নামে এক কারাবন্দির মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২৩ নভেম্বর) ভোরে হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শাবানা বেগম। তিনি গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের কিশামত সর্বানন্দ গ্রামের সোলেমান মিয়ার স্ত্রী।

স্বজনদের দাবি, পুলিশ শাবানা বেগমকে অটোরিকশা চুরির মামলায় ফাঁসিয়ে থানায় মারধর করে। মারধরের ফলে কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। শাবানা বেগম গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থানার একটি অটোরিকশা চুরির মামলায় গত ৫ নভেম্বর থেকে গাইবান্ধা কারাগারে বন্দি ছিলেন।

নিহতের স্বামী সোলেমান মিয়ার দাবি, গত ৪ নভেম্বর বিকেলে গাইবান্ধা থেকে ওষুধ কিনে সুন্দরগঞ্জের বামনডাঙ্গায় ফেরার পথে লক্ষ্মীপুর থেকে একটি অটোতে ওঠে তার স্ত্রী শাবানা। অটোরিকশাটি পাঠারমোড় এলাকায় পৌঁছালে চালক অটো থামিয়ে কয়েকজনকে জানায় অটোতে থাকা মিঠু ও সুমন নামে দুজন ব্যক্তি তাকে চেতনানাশক কোনো ওষুধ খাইয়েছে। একথা শুনে এলাকাবাসী ওই দুই ব্যক্তিকে ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়। এ সময় শাবানাকে অটোরিকশা চোর সন্দেহে আটকের পর মারধর করে সুন্দরগঞ্জ থানায় সোপর্দ করে এলাকাবাসী। পরে পুলিশ শাবানাকে থানা হেফাজতেই নির্মম নির্যাতন করে।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় অটোচালক আঙ্গুর মিয়াকে চাপ দিয়ে পুলিশ অটোরিকশা চুরির মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে শাবানাকে গাইবান্ধা কারাগারে পাঠায়। পরে গত ১৮ নভেম্বর বিকেলে অসুস্থ অবস্থায় গাইবান্ধা কারাগার থেকে রংপুর মেডিকেলের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি করা হয় তাকে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ভোরে শাবানা মারা যান।

শাবানার ছেলে সাজু মিয়া বলেন, সুন্দরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কমল মোহন চাকি আমার মাকে অটোরিকশা চোর সন্দেহে অবর্ণনীয় নির্যাতন করার ফলে অসুস্থ হয়ে যায়। পরে ওই অসুস্থ অবস্থাতেই আমার মাকে গাইবান্ধা কারাগারে পাঠানো হয়। কারাগারে অসুস্থ শরীর নিয়েই গত ৫ নভেম্বর থেকে ১৮ তারিখ পর্যন্ত ছিল। কিন্তু কোন চিকিৎসা পায়নি আমার মা।

মেডিসিন ওয়ার্ডের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. মোহসিনা খানম বলেন, শাবানার শরীরের ডায়াবেটিকের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় তার মৃত্যু হয়। তবে তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বণিক বলেন, গত ১৮ নভেম্বর বিকেলে গাইবান্ধা কারাগার থেকে এনে রংপুর কারাগারের তত্ত্বাবধানে রংপুর মেডিকেলের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি করা হয় তাকে। হাসপাতালের প্রিজন ওয়ার্ডে শাবানাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। কিন্তু চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ভোরে শাবানা মারা যান। পরে জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয় শাবানার মরদেহ।

তিনি আরও বলেন, চিকিৎসক জানিয়েছেন, ডায়াবেটিস বেড়ে যাওয়ায় শাবানা বেগম মারা গেছেন। তবে মূল ঘটনা ময়নাতদন্তের পরই বোঝা যাবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়