প্রকৃতি রক্ষায় নিঃস্বার্থ যোদ্ধা আরিফুর রহমান

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ১০:২৫ রাত
আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ১০:২৫ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর মহাদেবপুরের রাইগাঁ ইউনিয়নের গ্রামীন রাস্তায় গেলে চোখে পড়বে ছোট-বড় সারি সারি ফুল, ফল ও ওষুধিসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ। গাছগুলো লাগিয়েছেন রাইগাঁ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ও রাইগাঁ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান আরিফ।

২০১৭ সালের দিকে নিজের বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়া রাস্তা শহরাই সড়কে প্রায় এক হাজার তালবীজসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ রোপণ করেন। তার লাগানো গাছগুলো বড় হতে শুরু করলে মনে একটি ভালো লাগার অনুভূতি কাজ করে। সেই গাছগুলো বড় হওয়ার পর উৎসাহ আরও বেড়ে যায়। পরবর্তীতে পুরো ইউনিয়নের বিভিন্ন সড়কের দুই পাশে ফুল, ফলদ, বনজ, ওষুধি ও তাল বীজসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ লাগিয়েছেন।

অধ্যক্ষ আরিফুর রহমান এখন পর্যন্ত ১৫ হাজারেরও বেশি গাছ রোপণ করেছেন। এছাড়া করোনাভাইরাসের সময় জনসচেতনতা সৃষ্টি, লিফলেট বিতরণ, মাস্ক বিতরণ ও জীবাণুনাশক ছিটানোসহ সকল জনকল্যানমূলক কাজে জনসাধারণের পাশে ছিলেন। তিনি দিন-রাত শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন দল মত নির্বেশেষে সকল জনসাধারনের জন্য। রাতে গ্রামে গ্রামে ঘুরে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করছেন। তিনি রাইগাঁ ইউনিয়নের বহুতি কবরস্থান, বহুতি জামে মসজিদ, শহরাই কবরস্থান, রাইগাঁ পূর্বপাড়া কবরস্থান, কানচকুড়ি মন্দির, কৃষ্ণপুর, দাউল বারবাকপুর রাস্তা, মহেশপুর, হরিপুর জামে মসজিদ, হরিপুর, মহেশপুর, নৈখট্টি রাস্তা, সিলিমপুর শ্মশান, ভবানীনগর জামে মসজিদ, বিরমগ্রাম জামে মসজিদ, দুজাটিয়া মসজিদ, বিরমগ্রাম মন্দির, বোয়লমারি মসজিদ, বোয়ালমারি মন্দির, বিড়মগ্রাম, খলিসাকুড়ি, বোয়ালমাড়ি রাস্তায় গাছগুলো লাগিয়েছেন।

এলাকাবাসী বলেন, প্রকৃতি রক্ষায় নিঃস্বার্থভাবে তিনি যে কাজ করে যাচ্ছেন তা সত্যিই নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত। অধ্যক্ষ হওয়ার পরও তিনি রাইগাঁ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার পাশাপাশি তিনি এভাবেই চালিয়ে যাচ্ছেন জনকল্যানমূলক কার্যক্রম।

আরিফুর রহমান বলেন, গাছের প্রতি ভালবাসার কারণে তিনি সারা জীবনই বৃক্ষরোপণ করতে চান। এসব গাছ লাগিয়ে ব্যক্তিগতভাবে লাভবান হওয়ার কোনো ইচ্ছে নেই তার। গাছগুলো পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বিশেষ ভূমিকা রাখবে, এতেই আমি খুশি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়