বগুড়ায় সুদ কারবারিদের চাপ সইতে না পেরে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা, রেখে গেলেন সাতদিনের সন্তান

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৬, ২০২২, ০৮:২১ রাত
আপডেট: নভেম্বর ১৭, ২০২২, ১০:৫১ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়া শহরে সুদ কারবারিদের চাপ সহ্য করতে না পেরে সাগর রায় (৩০) নামে এক ব্যবসায়ী আত্মহত্যা করেছেন। ৭ দিন বয়সী ছেলে সন্তান রেখে তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। সাগর শহরের কইপাড়া এলাকার স্বদেশ রায়ের ছেলে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সাগর একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ছিলেন। তিনি ব্যবসার প্রয়োজনের এলাকার একাধিক দাদন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে কিছু টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। তবে সেই টাকা সুদে-আসলে শোধ করতে পারছিলেন না তিনি। দাদন কারবারিরা তাকে সুদসহ টাকা পরিশোধের জন্য চাপ দিয়ে আসছিলেন। এর মধ্যে আবার তিনি বাবাও হন। তার স্ত্রী একটি ফুটফুটে ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। কিন্তু দাদন ব্যবসায়ীরা তার পিছু ছাড়ছিল না। তারা তাকে আরও বেশি চাপ দেয়া শুরু করে।

এতে মানসিক চাপ সহ্য করতে না পেরে ৭ দিন বয়সী সন্তান রেখে তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।  গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিষ পান করে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর বাড়ির লোকজন তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে দেন। কিন্তু ভর্তির একদিন পরে আজ বুধবার সকাল ৮ টার দিকে সাগর মারা যান।

এ ব্যাপারে সদর থানার এসআই জহুরুল ইসলাম জানান, সাগর রায় একাধিক ব্যক্তির কাছ থেকে টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। সেই টাকা পরিশোধ না করায় তারা তাকে অপমান করেন। এতে অভিমান করে তিনি বিষ পান করে আত্মহত্যা করেন। তিনি আরও জানান, ময়না তদন্তের জন্য তার লাশ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়