দেবী দুর্গাকে বরণ করতে মন্ডপে মন্ডপে ভক্তদের অপেক্ষা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২, ১২:৪০ রাত
আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২, ১২:৪০ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

স্টাফ রিপোর্টার: সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজার আর মাত্র একদিন বাকি। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। বগুড়ায় প্রতিমা তৈরির শিল্পীদের দম ফেলার সময় নেই। সময়মত প্রতিমা ডেলিভারি দেয়ার জন্য ব্যস্ত সময় পার করছেন। অন্যদিকে আয়োজকরা মন্ডপে মন্ডপে করছেন সাজসজ্জার কাজ। আগামী শনিবার মহা ষষ্ঠী পূজার মাধ্যমে পূজার মূল পর্ব শুরু হয়ে বুধবার বিজয় দশমীতে বিসর্জনের মাধ্যমে শেষ হবে পূজার আনুষ্ঠানিকতা।

বগুড়া সদরের বিভিন্ন মন্ডপে শিল্পীরা প্রতিমার শেষ সময়ে কাজ করছেন। প্রতিমার গায়ে রং তুলির আচড় এবং অলংকরণ করে ফুটিয়ে তুলেছেন দেবীর সৌন্দর্য। তাদের হাতের শৈল্পিক ছোয়ায় জীবন্ত হয়ে উঠেছে প্রতিমা। এরই মধ্যে অনেক মন্ডপ থেকে প্রতিমা ডেলিভারিও শুরু হয়েছে। আয়োজকরাও সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে দৌঁড়ঝাপ করছেন।

বগুড়া সদরের উত্তর চেলাপাড়া নব বৃন্দাবন হরিবাসর মন্দির প্রাঙ্গনে 'বিশ্ব কর্মা প্রতিমা তৈরির কারখানা'। এবারের পূজায় এই কারখানা থেকে ২৮টি প্রতিমা তৈরি করা হয়েছে। বগুড়াসহ আশেপাশের জেলা উপজেলা নাটোর, সিংড়া থেকে অর্ডার পেয়েছিলেন। কারখানার স্বত্তাধিকারী কাজল চন্দ্র প্রামানিক জানান, অর্ডারমত প্রতিমা তৈরির কাজ ও রঙের কাজও শেষ। এরই মধ্যে প্রতিমা ডেলিভারিও হয়ে গেছে ৬টা। আশা করছেন সময়মত সব প্রতিমা ডেলিভারি দিতে পারবেন।

অপরদিকে আরও একটা প্রতিমা তৈরির কারখানা লক্ষী প্রতিমা হাউস। এর সত্ত্বাধিকারী গনেশ চন্দ্র সরকার জানান, শেষ মুহুর্তে দম ফেলার সময় নেই। তিনি ৯টা প্রতিমার অর্ডার পেয়েছিলেন। কাজও শেষের পথে। প্রতিমাতে রঙের ও অলংকরণের কাজ চলছে। পূজা শুরুর আগের দিন পর্যন্ত কাজ চলবে। তিনি আরও বলেন, এবার প্রতিমা বানানোর খরচ বেড়েছে। এক একটি প্রতিমার সেট বানাতে খরচ হয়েছে ২০ থেকে ৩৩ হাজার টাকা। এছাড়াও কারিগর শ্রমিকদের খরচও বেড়েছে। সব মিলিয়ে এবার একটু হিমসিম খেতে হচ্ছে। তবুর সময় মতই আয়োজকদের কাছে প্রতিমা ডেলিভারি দিবেন বলে আশা রাখছেন।

এদিকে আজ সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী বগুড়া জেলার ১২টি উপজেলায় ৬৭৯টি মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে বগুড়া সদরেই দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে ১১৬টি মন্ডপে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়