দুর্গোৎসবের আগেই নারিকেলের দাম আকাশস্পর্শী

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২, ১২:২০ রাত
আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২, ১২:২০ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

স্টাফ রিপোর্টার: বাঙালি সনাতন ধর্মালম্বীদের অন্যতম বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজার প্রসাদ অথবা অতিথি আপ্যায়নে নারিকেলের নাড়ু অপরিহার্য অনুষঙ্গ। পূজোয় সনাতন ধর্মালম্বীদের বাড়িতে নাড়ু ছাড়াও কয়েক প্রকারের মুখরোচক খাবারের পদ থাকে। যে উৎসবের খাবারের প্রধান উপকরণ  নারিকেল। সেই নারিকেলের দাম এখন আকাশস্পর্শ করার মত। গত বছরের চেয়ে এ বছর প্রতিটি নারিকেলে দাম বেড়েছে গড়ে ২০ থেকে ৫০ টাকা।

বগুড়া শহরের বাদুরতলা এলাকার স্বপন কুমার কুন্ডুর সাথে কথা হলে তিনি জানান, নারিকেল কিনতে গিয়ে তিনি এ দোকান ওই দোকান ঘুরছিলেন। কোথাও যেন তার খটকা ছিলো। নারিকেলের দাম নিয়ে তার বিষ্ময়ের কমতিও ছিলোনা। এক দমে বললেন গতবছর যে নারকেলের দাম ৪০ টাকা এবার সেই নারিকেলের দাম ৭০ টাকা। আর গত বছর যার দাম ৭০ থেকে সবোর্চ্চ ৮০ টাকা ছিলো সেই নারকেল এবার বিক্রি হচ্ছে ১১০ থেকে ১২০ টাকায়। স্বপন কুমার কুন্ডুর কথার সত্যতা মিলাতে গিয়ে বাজারে গিয়ে দেখা গেলো বোধনের আগেই নারিকেলের দাম বেড়ে গেছে। শহরের যে ক‘টি খোলা দোকানে নারিকেল পাওয়া যায় তার মধ্যে হলো ফতেহআলী বাজারের মাজারগেট সংলগ্ন কয়েকটি দোকান আর রাজা বাজারের প্রবেশ মুখে কয়েকটি দোকানে। তবে পূজা উপলক্ষে এখন বেশ কিছু জায়গায় নারিকেল পাওয়া যাচ্ছে। সুপারশপ স্বপ্নতে নারকেল বিক্রি হচ্ছে প্রতিটি ১১০ টাকা করে। খোলা বাজারে আকার ভেদে প্রতিটি ৬০ থেকে ১২০ টাকা। সামর্থ অনুযায়ী সনাতনধর্মালম্বীরা তা কিনছেন। নারিকেল দোকানীদের মতে নারিকেলের দাম মোকামেই বেশি। আগের চেয়ে ১০ থেকে ১৫ টাকা বেশি দামে নারিকেল কিনতে হয়। তারপর সেই নারিকেল ট্রাকে করে আড়তে আসে। আড়ৎদারেরা প্রতিটি নারকেলের উপর নির্দিষ্ট দাম লাভ ধরে খুচরা বিক্রেতাদের কাছে দেয়। আবার খুচরা বিক্রেতারা নিজেরা কিছু লাভ রেখে তা বিক্রি করে। কয়েক হাত ঘুরে ক্রেতার কাছে যায় বলে নারিকেলের দাম অন্য সব কিছুর মত বেশি হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়