জন্ম-নিবন্ধনের নতুন নিয়ম

জন্মতারিখের যে কোনো একটি প্রমাণপত্র থাকলেই নিবন্ধন করা যাবে

প্রকাশিত: আগস্ট ১৭, ২০২২, ১০:০৫ রাত
আপডেট: আগস্ট ১৭, ২০২২, ১০:০৫ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

স্টাফ রিপোর্টার: এখন থেকে জন্ম নিবন্ধন করতে বাবা-মা’র আর জন্ম সনদ লাগবে না। জন্মতারিখের যে কোনো একটি প্রমাণপত্র থাকলেই জন্মনিবন্ধন করা যাবে। নতুন নিয়মে মা-বাবা যে কারোর জন্মনিবন্ধন থাকলে সন্তানের জন্মনিবন্ধন করা যাবে। সে ক্ষেত্রে শুধু বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা এবং সন্তানের জন্মের একটি প্রমাণপত্র- যেমন টিকার কার্ড বা হাসপাতালের ছাড়পত্রের কপি দিলেই জন্ম নিবন্ধন করা যাবে। গত ১ আগস্ট থেকে নতুন নির্দেশনা জারি করেছে ঢাকার রেজিস্ট্রার জেনারেলের কার্যালয়।

গত বছরের ১ জানুয়ারি থেকে জন্মনিবন্ধনের ক্ষেত্রে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছিল সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষ। যেমন- সন্তানের জন্মনিবন্ধন করতে আগে মা-বাবার জন্মনিবন্ধন সনদ নিতে হতো। ওই সনদ নিতে গিয়ে স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানার প্রমাণপত্রসহ সংযুক্ত করতে হতো আরও অনেক কিছু। বেশি বিপাকে পড়ত মা-বাবা বিচ্ছেদ হওয়া সন্তানরা। এসব প্রমাণপত্র জোগাড় করতে না পারায় তাদের জন্মনিবন্ধন করাটা কঠিন হয়ে উঠেছিল। এসব শর্তের কারণে জন্মনিবন্ধন কার্যালয়গুলোতে গড়ে ওঠে অসাধু চক্র।

এখন পদ্ধতিটা এমন করা হয়েছে, যে কেউ চাইলে সব তথ্য জন্মনিবন্ধনের সময় দিয়ে রাখতে পারবে। এতে করে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য সুবিধা হবে। কেউ পুরোটা দিতে না চাইলে জন্মের একটি মাত্র প্রমাণপত্র যেমন টিকার কাগজ বা হাসপাতালের ছাড়পত্র দিয়েও সন্তানের জন্মসনদ নিতে পারবেন।

যেভাবে নিবন্ধন: রেজিস্ট্রার জেনারেলের কার্যালয়ের ওয়েবসাইটে http://www.orgbdr.gov.bd/ ঢুকে 'আমাদের সেবা' আইকনে ক্লিক করলেই প্রথমে 'জন্মনিবন্ধন' নামের একটি সেবা ট্যাব আসবে। সেটাতে ক্লিক করলেই আসবে একটি আবেদন ফরম। সেটা পূরণ করে ডাউনলোড করে প্রিন্ট দিয়ে সিটি করপোরেশনের আঞ্চলিক কার্যালয়, পৌরসভা বা ইউনিয়ন পরিষদের সংশ্নিষ্ট শাখায় গেলেই যে কেউ জন্মনিবন্ধন সনদ পেয়ে যাবেন। তবে এ ক্ষেত্রে জন্মের উপযুক্ত প্রমাণপত্র উপস্থাপন করতে হবে।

গত ১ আগস্ট থেকে নতুন নির্দেশনা জারি হলেও গণমাধ্যমে সেটার কোনো বিজ্ঞপ্তি দেয়নি প্রতিষ্ঠানটি। নিজস্ব ওয়েবসাইটে একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েই দায় সেরেছে কর্তৃপক্ষ। ফলে স্থানীয় সরকারের যেসব কর্মী নিবন্ধন কাজের সঙ্গে যুক্ত তারাও অনেকে জানেন না নতুন এই নির্দেশনা। প্রায় দুই সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও যারাই জন্মনিবন্ধনের জন্য সিটি করপোরেশন বা পৌরসভার সংশ্নিষ্ট দপ্তরে যাচ্ছেন তাদের কাছেও আগের মতোই পুরোনো কাগজপত্র দাবি করছেন নিবন্ধনকর্মীরা। এ ব্যাপারে বগুড়া পৌরসভার স্যানিটারী ইন্সপেক্টর শাহ্ আলীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, নতুন নিয়মে জন্ম নিবন্ধন করার জন্য কোন নির্দেশনা তারা পাননি। এখন পর্যন্ত পুরাতন পদ্ধতিতেই তারা জন্ম নিবন্ধন করছেন। বাবা-মা’ জন্ম সনদ নিয়েই জন্ম নিবন্ধন করা হচ্ছে। বগুড়া পৌরসভা থেকে প্রতিদিন ৩শ’ থেকে সাড়ে ৩শ’ জন্ম নিবন্ধন করা হয় বলে তিনি জানান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়