স্কুলে-স্কুলে টিম গঠন শুরু

২০-২৬ আগস্ট শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করবে ক্ষুদে ডাক্তাররা

প্রকাশিত: আগস্ট ১৬, ২০২২, ১০:৫০ রাত
আপডেট: আগস্ট ১৬, ২০২২, ১০:৫০ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

নাসিমা সুলতানা ছুটু: ক্ষুদে ডাক্তারের মাধ্যমে আগামী ২০ থেকে ২৬ আগস্ট পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। এ জন্য সব কিন্ডারগার্টেন, প্রাথমিক, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের নিয়ে ক্ষুদে ডাক্তারের দল গঠন করা শুরু হয়েছে। ক্ষুদে এই ডাক্তারের দল শিক্ষার্থীদের ওজন, উচ্চতা ও দৃষ্টি শক্তি পরীক্ষা করে অস্বাভাবিক শারীরিক বৃদ্ধি, দৃষ্টি শক্তির ত্রুটিসহ নানা বিষয় গাইড শিক্ষকের নজরে আনবেন।

ক্ষুদে ডাক্তারের মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষা কার্যক্রম সফলভাবে বাস্তবায়ন করতে মাঠ পর্যায়ের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষা কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। গত ৩ আগস্ট এই বিষয়ে নির্দেশনা দিয়ে মাউশির পরিচালক (মাধ্যমিক) প্রফেসর মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন জেলা-উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, গত ৫ জুলাই অনুষ্ঠিত টেকনিক্যাল কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২০ থেকে ২৬ আগস্ট কিন্ডারগার্টেন, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং সমপর্যায়ের মাদ্রাসাসহ সরকারি-বেসরকারি সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্ষুদে ডাক্তার কর্তৃক শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় গঠিত ক্ষুদে ডাক্তার দল তাদের জন্য নির্ধারিত শ্রেণির সব শিক্ষার্থীর ওজন, উচ্চতা ও দৃষ্টি শক্তি পরিমাপসহ আনুসঙ্গিক অন্যান্য তথ্য সংগ্রহ করে তা স্বাস্থ্য পরীক্ষার ফরমে লিপিবদ্ধ করবে। অধিদপ্তর আরও বলছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে খুদে ডাক্তারের দল গঠন এবং তাদের মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষা একটি অভিনব কার্যক্রম যাতে শিক্ষার্থীদের অনুপ্রানিত হওয়ার, দলগতভাবে কাজ করার এমনকি সুশৃঙ্খল ভাবে বেড়ে উঠার সুযোগ রয়েছে। স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে গিয়ে এই খুদে ডাক্তারের দল কোন শিক্ষার্থীর অস্বাভাবিক শারীরিক বৃদ্ধিসহ দৃষ্টি শক্তিতে ত্রুটি কিংবা স্বাস্থ্য পরীক্ষার ফরমে উল্লেখিত অন্যান্য বিষয়াদির তথ্যও গাইড শিক্ষককের নজরে আনতে পারবে এবং বিষয়গুলো প্রাথমিক পর্যায়েই সংশোধনের ব্যাপারেও সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

এই বিষয়ে বগুড়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাবেয়া খাতুন জানান, গত কয়েকদিন আগে বগুড়া সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে একটি নির্দেশনা পেয়েছেন, যেখানে বলা হয়েছে ক্ষুদে ডাক্তারের দল গঠন করে ২০ থেকে ২৬ আগস্টের মধ্যে শিক্ষার্থীদের ওজন, উচ্চতা ও দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা করে নির্দিষ্ট ফরমের মাধ্যমে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগকে জানাতে হবে। সে অনুযায়ী তারা ইতোমধ্যে ৪টি টিম গঠন করেছেন। প্রতিটি টিমে ৬জন করে শিক্ষার্থী রয়েছে। ২টি টিম দিবা শাখা ও ২টি টিম প্রভাতী শাখায় কাজ করবে। বগুড়া আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ এটিএম মোস্তফা কামাল জানান, ক্ষুদে ডাক্তার টিম গঠনের বিষয়ে তারা একটি চিঠি পেয়েছেন। আগামী ২-১দিনের মধ্যে তারা টিম গঠন করবেন এবং ওই টিমকে স্বাস্থ্য সহকারীর মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দিয়ে শিক্ষার্থীদের ওজন, উচ্চতা ও দৃষ্টি শক্তি মাপা হবে। বগুড়া বিয়াম মডেল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, তার প্রতিষ্ঠানে এর আগে ক্ষুদে ডাক্তারের দল ছিল না। এবারই ক্ষুদে ডাক্তারের দল গঠনের জন্য সরকারি নির্দেশনা পেয়েছেন। ২০ আগস্টের আগেই ক্ষুদে ডাক্তারের টিম গঠন করবেন বলে জানান।

বগুড়া জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ হজরত আলী জানান, গত ১০ আগস্ট সিভিল সার্জন কার্যালয়ে জেলার সকল শিক্ষা কর্মকর্তাদের নিয়ে ক্ষুদে ডাক্তারের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা সংক্রান্ত একটি এডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপর জেলার ১২টি উপজেলার শিক্ষা কর্মকর্তাদের স্ব স্ব উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ক্ষুদে ডাক্তার টিম গঠনের জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ শফিউল আজম জানান, আগামী ২০ থেকে ২৬ আগস্ট ক্ষুদে ডাক্তারের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য জেলার সকল স্কুল, মাদ্রাসা ও কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলোতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ক্ষুদে ডাক্তাররা শিক্ষার্থীদের ওজন, উচ্চতা ও চোখের দৃষ্টিশক্তি মাপবে। কিন্ডারগার্টেন বা প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের এই কার্যক্রম সফল করতে তাদের পাশে উপজেলা স্বাস্থ্য সহকারীরা থাকবেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়