উল্লাপাড়ায় সাবেক চেয়ারম্যানের বাড়ির লোকজনকে আটকে রেখে ৬ লাখ টাকার মালামাল লুট

প্রকাশিত: জুলাই ৩১, ২০২২, ০৯:৩৮ রাত
আপডেট: জুলাই ৩১, ২০২২, ০৯:৩৮ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় সাবেক চেয়ারম্যান ও কলেজ শিক্ষক শহিদুল ইসলামের বাড়িতে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। গত শনিবার গভীর রাতে উল্লাপাড়া সলপ ইউপি চেয়ারম্যন ও সলপ ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক শহিদুল ইসলামের শেখপাড়া গ্রামের বাড়িতে ডাকাতরা দেশীয় অস্ত্রের মুখে বাড়ির লোকজনকে এক ঘরে বেঁধে আটকে রেখে প্রায় ৬ লাখ টাকার মালামাল লুটে নিয়ে গেছে। জাতীয় জরুরি ৯৯৯ নম্বরে ফোন করায় উল্লাপাড়া থানা পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে যায়। আজ রোববার বেলা ১টার দিকে ডাকাতদের ছিনিয়ে নেওয়া একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে পুলিশ।

উল্লাপাড়ার সলপ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম অভিযোগ করেন, রাতে তিনি বাড়িতে ছিলেন না। তার পরিবারের লোকজন ছিল। রাত ২টা ৩০ মিনিটের দিকে ১০/১৫ জন ডাকাত ড্যাগার, বড় ছুরি, হাসুয়া ও লোহার রড নিয়ে তাদের বাড়িতে ঢোকে। প্রথমে তার মায়ের ঘরের জানালার গ্রিল কেটে ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে শহিদুলের ভাতিজী জামাই স্কুল শিক্ষক আলাউদ্দিনকে মারধোর করে। ডাকাতরা তার হাত বেঁধে বাড়ির একটি ঘরে বেঁধে রাখে। এরপর বাড়িতে থাকা তার ২ ভাতিজি, ১ ভাবিসহ ৪/৫ জনকে একই ঘরে আটকে রেখে ডাকাতদের কয়েকজন তাদের গলায় ছোরা ধরে রাখে। এসময় সবার কাছ থেকে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়া হয়। পরে কয়েকজন ডাকাত ঘরের স্টিল আলমারি ও অপর আসবাবপত্র ভেঙে ৬/৭ ভরি সোনার গহনা এবং প্রায় ১ লাখ টাকা এবং দামি বিছানার চাদর ও শাড়ি নিয়ে  যায়। ডাকাতদের মুখ কালো কাপড় দিয়ে বাঁধা ছিল বলে পরিবারের সদস্যরা শহিদুলকে জানিয়েছেন। ডাকাতদল চলে যাওয়ার পর ঘরের মধ্যে আটকে থাকা লোকজনের চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এসে সবাইকে উদ্ধার করে।

শহিদুল ইসলাম আরও জানান, সব মিলিয়ে তাদের প্রায় ৬ লাখ টাকার সামগ্রী লুট করে ডাকাতরা। ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর লোকজন ৯৯৯ নম্বরে ফোন করলে উল্লাপাড়া থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে।

এ ব্যাপারে উল্লাপাড়া মডেল থানার উপ-পরিদর্শক সাহেব গনি জানান, ফোন পেয়ে তিনি তার পুলিশ বাহিনী নিয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে যায় এবং ঘরবাড়ি পরিদর্শন করে। তবে ডাকাতদের ছিনিয়ে নেওয়া ফোনে কথা বলার একটি ক্লু পুলিশ পেয়েছে। এই ক্লু ধরে পুলিশ উল্লাপাড়া উপজেলার মৈত্র বড়হর পশ্চিমপাড়া গ্রামের ব্যবসায়ী নুর ইসলারে বাড়ি থেকে ডাকাতদের ছিনিয়ে নেওয়া একটি অপ্প কোম্পানির এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন সেট রোববার বেলা ১টার দিকে উদ্ধার করেছে। নুর ইসলাম একজন হাঁসের বাচ্চা বিক্রেতা। তিনি রোববার সকালে মোহনপুর বাজারে যাবার সময় রেল সেতুর একটি ব্রিজের কাছে ওই মোবাইল সেটটি পান। বাড়ি নিয়ে এসে তিনি পুলিশকে খবর দেন। ইতোমধ্যেই সেই ক্লু ধরে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। ডাকাতির ঘটনার ব্যাপারে শহিদুল ইসলাম থানায় একটি এজাহার দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়