রাণীনগরে মাচা পদ্ধাতিতে তরমুজ চাষ 

প্রকাশিত: মে ১৪, ২০২২, ০২:৫৪ দুপুর
আপডেট: মে ১৪, ২০২২, ০২:৫৪ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

রাণীনগর (নওগাঁ): নওগাঁর রাণীনগরে মাচা পদ্ধুতিতে বারোমাসি তরমুজের চাষ বানিজ্যিক ভাবে শুরু হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় চাষি তুফান প্রায় ১ বিঘা জমিতে এই তরমুজের চাষ শুরু করেন। 

গত বছর স্বল্প পরিসরে এই তরমুজের চাষ করে ফলন তেমন ভালো না হলেও হাল ছাড়েননি তুফান। গত বছরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে চলতি মৌসুমে উপজেলা কৃষি অফিসের পরামর্শে ঢাকার ইস্পাহানী ও ইউনাইটেড বীজ কোম্পানী থেকে হলুদ রঙের মধূমালা ও সবুজ রঙের সুগার কিং জাতের বীজ নিয়ে তার নিজ জমিতে প্রায় ২মাস আগে বীজ বপন করেন। বর্তমানে মাচার নিচে গাছের ডগায় ডগায় ঝুলছে ওই রঙের তরমুজ। বাজারজাত করা শুরু না হলেও আগামী সপ্তাহ থেকে বিক্রয় শুরু করবে এমনটাই আশা করছেন তরমুজ চাষি তুফান। 

তবে ফলনে আশাবাদি হলেও বাজার মূল্য নিয়ে কিছুটা চিন্তিত রয়েছেন তিনি। কৃষি বিভাগ বলছে মৌসুমী তরমুজ শেষ হলেই বারোমাসি এই তরমুজগুলো বাজারে চাহিদা বৃদ্ধি পাবে। তাই দাম, নিয়ে আতংক হওয়ার কিছুই নাই। সব মিলিয়ে তুফান তরমুজ বিক্রি করে লাভবান হবেন এমনটাই ধারণা করছেন কৃষি বিভাগ। 

জানা গেছে, উপজেলার গোনা ইউনিয়নের বেতগাড়ী গ্রামের মৃত আব্দুল গফুর খন্দকারের ছেলে মাসুদ খন্দকার তুফান বেশ কিছুদিন ধরে বিভিন্ন জাতের সবজি চাষ করে আসছে। তার নানা জাতের সবজি চাষের জমির পরিমাণ প্রায় ২৫বিঘা। এর মধ্যে গত দুই মাস আগে ঢাকার ইউনাইটেড ও ইস্পাহানী বীজ কোম্পানী থেকে দুই জাতের বীজ কিনে নিয়ে এসে জমিতে বপন করেন। নিবিড় পরিচর্যা ও  আর্র্সেনিক পদ্ধুতিতে এই তরমুজ চাষ করায় প্রতিটি গাছের ডগায় ডগায় ফল ধরেছে। দেখতে খুব সুন্দর হওয়ায় আশেপাশের লোকজন তা দেখতে আসছে। প্রতিবেশি চাষিরা বলছে আমরাও এই তরমুজের চাষ শুরু করবো। 

সব ঠিক থাকলে আগামী সপ্তাহে  তরমুজ বাজারে আসবে এমনটাই ধারণা করছেন প্রগতিশীল চাষি তুফান। ইউটিউবের বদৌলতে চাষের ধরণ দেখে গত বছরে মাত্র ৫ কাঠা জমির উপরে মাচা পদ্ধতিতে পরীক্ষামূলক ভাবে এই তরমুজের চাষ শুরু করেন। বীজ বোপন থেকে শুরু করে প্রায় ২ মাসের মধ্যে এই তরমুজ খাওয়ার উপযোগী হয়ে উঠেছ। 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়