পাঁচবিবিতে ৪ বছরের দেবরকে শ্বাসরোধ করে হত্যা; ভাবী আটক

প্রকাশিত: মে ১১, ২০২২, ০১:১৭ দুপুর
আপডেট: মে ১১, ২০২২, ০১:১৭ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

বাগজানা (জয়পুরহাট) প্রতিনিধিঃ জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে আব্দুল্লাহ লাবিব (৪) নামের এক শিশুকে  শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে আপন ভাবী রিমা খাতুন (১৮)। 

ঘটনাটি ঘটেছে ১০মে মঙ্গলবার উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের সাতানা গ্রামে। শিশু আব্দুল্লাহ লাবিব ঐ গ্রামের জহের আলীর পুত্র। এ ঘটনায় নিহত লাবিবের ভাবী রিমা খাতুনকে আটক করেছে পুলিশ। 

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, জাহের আলীর দুই ছেলে মেস্তাউল ও লাবিব। মেস্তাউলের স্ত্রী রিমা খাতুন বিয়ের পর থেকে প্রায় শ্বশুর-শ্বাশুড়ির সঙ্গে ঝগড়া বিবাদে লেগে থাকতো। ফলে বাধ্য হয়ে জাহের আলী তার বড় ছেলে মেস্তাউলকে আলাদা বাড়ি করে দেন। ঘটনার দিন সকালে জাহের আলী তার বড় ছেলে মেস্তাউলকে সঙ্গে নিয়ে মাঠে ধান কাটার জন্য যায়। এই সুযোগে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ভাবী রিমা খাতুন তার একমাত্র দেবরকে ভাত খাওয়ানোর কথা বলে নিজ বাড়িতে এনে শ্বাস রোধ করে হত্যা করে। হত্যার পর নিজ ঘরের ভিতর লেপ দিয়ে ঢেকে রাখে। 

পরে রিমার শ্বাশুড়ী তার শিশু ছেলেকে নিয়ে যাবার জন্য বড় ছেলে মেস্তাউলের বাড়িতে আসে। বড় ছেলের বাড়িতে না পেয়ে শিশু লাবিবকে খুজতে থাকে তার মা। একপর্যায়ে লাবিবের লাশ ঘরের ভিতর থেকে উদ্ধার করা হয়। 

থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রিমা তার দেবর লাবিবকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করেছে এবং পুলিশ রিমাকে ইতিমধ্যে আটক করেছে। 

লাশ ময়না তদন্তের জন্য জয়পুরহাট মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় মামলার প্রস্ততি চলছে। পাঁচবিবি সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ইশতিয়াক আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়