আদমদীঘিতে ঘর থেকে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: মে ১১, ২০২২, ১১:৫৭ দুপুর
আপডেট: মে ১১, ২০২২, ১১:৫৭ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার আদমদীঘিতে এমরান হোসেন মিসু (২০) নামের এক যুবকের ঘর থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল ১০ মে মঙ্গলবার রাত ৮টায় আদমদীঘি উপজেলার উথরাইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। মৃত এমরান হোসেন মিসু আদমদীঘির উথরাইল গ্রামের মৃত আশরাফ আলীর ছেলে। সে আউটসোসিংয়ের কাজ করতো।

পুলিশ ও পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, এমরান হোসেন মিসু দীর্ঘদিন যাবত আউটসোসিং কাজ করতো। এই কাজ শেষে গভীর রাতে বাড়ি এসে খাবার পর ঘুমিয়ে পড়তো। গত সোমবার সারাদিন বাড়ির বাহিরে থেকে রাত ১১ টায় বাড়ি যায়। তার মায়ের সাথে খাবার পর ঘরের দরজা বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়ে। পরদিন গতকাল মঙ্গলবার ঘুম থেকে উঠতে বিলম্ব হওয়ায় সন্ধ্যায় তার মা ডাকাডাকি করে কোন সাড়া না পেয়ে প্রতিবেশিদের খবর দেন। এরপর প্রতিবেশিরা ঘরের দরজা বন্ধ থাকায় মাটির ঘরের উপড় ছিদ্র করে দেখতে পান এমরান হোসেন মিসু ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ রাত ৮টায় ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। 

এমরান হোসেন মিসুর মা সেলিনা বেওয়া জানান, প্রায় ১০ বছর আগে মিসুর বাবা আশরাফ আলী চলন্ত ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছিল। 

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ জালাল উদ্দীন জানান, এমরান হোসেন মিসু আত্মহত্যা করেছে কিনা তা পরীক্ষার জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা করা হয়।

 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়