'অষ্টধাতুর তাবিজ'এ আদমদীঘিতে চলছে জমজমাট প্রতারণা ব্যবসা

প্রকাশিত: মে ১০, ২০২২, ১০:৫৬ রাত
আপডেট: মে ১০, ২০২২, ১০:৫৬ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘি সদর ও সান্তাহারসহ সর্বত্র চলছে ভাগ্য পরিবর্তনের নামে অষ্টধাতুর তাবিজ বেসলেট ও পাথরের আংটি বিক্রির জমজমাট প্রতারনা ব্যবসা। একশ্রেনীর অসাধু চক্র চোখ ধাঁধাঁনো সাজে মজমা বসিয়ে নিজেদের তৈরি করা পাথরের আংটি, বেসলেট ও অষ্ঠধাতু তাবিজের পসরা সাজিয়ে সাধারন হাটুরিয়া, পথচারি ও যাত্রীদের নিকট মূল্যবান পাথর ও তাবিজের উপকারিতার মনভোলানো কথা বলে বিক্রি করে প্রতিদিন হাতিয়ে নিচ্ছে হাজার হাজার টাকা। আর এই চক্রের খপ্পরে পরে প্রতারিত হচ্ছে অনেকেই।


আদমদীঘি সদর, সান্তাহার রেলওয়ে জংশন স্টেশান প্লাটফরম, রেলগেট, মুরইল বাজার, চাঁপাপুর, ছাতিয়ানগ্রাম, নসরতপুর, কুন্দগ্রাম, হেলালিয়া ও কড়ই হাটবাজারসহ জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানসহ বিভিন্ন গ্রামীন মেলায় একটি সংঘবদ্ধ চক্র চোখ ধাঁধাঁনো সাজে মজমা বা পসরা বসিয়ে নিজেরাই অল্পদামে পাথর কিনে তা হিরা, পান্না, মুক্তা, রক্ত প্রবালসহ প্রভৃতি মূল্যবান পাথরের আংটি বেসলেট এবং রোগ নিরাময়ের জন্য অষ্ঠধাতু তাবিজ বানিয়ে রেল স্টেশন প্লাটফরমে অপেক্ষমান যাত্রী, পথচারি, হাটুরিয়া ও সাধারন মানুষদের জড়ো করে মনভোলানো কথা বলে তাদের নাম ও জন্ম তারিখ শুনে এই আংটি কিংবা অষ্টধাতুর তাবিজ ব্যবহার করলে ব্যবসায় সফলতা, পরীক্ষায় ভাল ফলাফল, প্রেম নিবেদনে কেউ বিফলে যাবেনা, জীবনের কোন সাধ অপূর্ণ থাকবেনাসহ ভাগ্য পরিবর্তনের নানা মনভোলানো কথা বলে প্রতারনা ব্যবসা চালিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। সাধারন মানুষদের পাথরের গুনগতমান সম্পর্কে তেমন ধারনা না থাকায় প্রতারক চক্রটি তাদের বলার অঙ্গ ভঙ্গিতে পাথর গুলো অত্যন্ত নামিদামি ও মূল্যবান বলে তাদের সহজেই বোঝাতে সক্ষম হন। ফলে মনভোলানোর কথার ফাঁদে পড়ে অনেকেই মূল্যবান ভেবে এই পাথরের আংটি বেসলেটসহ অষ্ঠধাতু তাবিজ কিনছেন। আংটি ও তাবিজ বিক্রেতা রবি সরকার, মন্টু, মিরাজ জানায়, তারা অল্পমূল্যে এইসব পাথর ও লোহাসহ কয়েক রকম ধাতব দ্রব্য কিনে আংটি, বেসলেট ও অষ্ঠধাতু তাবিজ তৈরি করে জনগুরুত্বপূর্ণ জনসমাগম এলাকায় মজমা বসিয়ে অল্প মূল্যে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়