ধুনটে ছাগলের খোঁয়াড় থেকে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত: মে ১০, ২০২২, ০৭:০৯ বিকাল
আপডেট: মে ১০, ২০২২, ০৭:০৯ বিকাল
আমাদেরকে ফলো করুন

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার ধুনটে ছাগলের খোঁয়াড় থেকে রানা মিয়া (২৭) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। রানা মিয়া উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়নের কৈয়াগাড়ি-জাংলাদহ গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে রানা মিয়া বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য সেবন করতেন। প্রায় ১০ মাস আগে একই এলাকার মরিচতলা গ্রামে বিয়ে করেন। স্বামী মাদকাসক্ত জেনে নববধূ দেড় মাস আগে বাবার বাড়ি চলে যান। এতে চরম হতাশায় পড়ে রানার মাদক সেবনের পরিমাণ বেড়ে যায়। প্রায় এক মাস আগে শ্বশুরবাড়ির পাশের রাস্তায় বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি।

সোমবার রাতের খাবার খেয়ে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন রানা মিয়া। পরদিন সকালে ঘরের ভেতর রানাকে না পেয়ে স্বজনরা খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। পরে বেলা ১১টার দিকে বাড়িতে ছাগল রাখার খোঁয়াড়ে রানার মরদেহ দেখতে পান স্বজনরা। খবর পেয়ে পুলিশ রানার মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে।

রানার বাবা আজিজার রহমান বলেন, ছেলে রাতে ঘরে ঘুমিয়েছিল। সকালে তার মরদেহ ছাগলের খোঁয়াড়ে পাওয়া গেছে। কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে তা বলতে পারছি না। তবে এ ঘটনায় কারো প্রতি আমার অভিযোগ নেই। এ বিষয়য়ে ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান বেলাল হোসেন বাবু বলেন, দীর্ঘদিন ধরে রানা মাদকাসক্ত ছিল। অতিরিক্ত মাদক সেবনের কারণে স্ট্রোক করে তার মৃত্যু হতে পারে।

ধুনট থানার কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্ত ছাড়া তার মৃত্যুর কারণ সঠিক করে বলা সম্ভব না। তবে রানার রহস্যজনক মৃত্যুর বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়