উদ্বোধনের আর মাত্র
০০
দিন
০০
ঘণ্টা
০০
মিনিট
০০
সেকেন্ড

চট্টগ্রামে দিনে দুপুরে বাসের ভেতর গৃহবধূকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৪

প্রকাশিত: জুন ২০, ২০২২, ০৭:৫২ বিকাল
আপডেট: জুন ২০, ২০২২, ০৭:৫২ বিকাল
আমাদেরকে ফলো করুন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:চট্টগ্রামে দিনে-দুপুরে বাসে দরজা বন্ধ করে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় চার পরিবহন শ্রমিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  গত রোববার দিবাগত রাত দেড়টায় হাটহাজারী বাসস্ট্যান্ড ও ফটিকছড়ি এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার পরিবহন শ্রমিকরা হলেন বাসের চালক নুরুল আলম (৩০), চালকের সহকারী রবিউল (২৩) ও সুপারভাইজার রাজু (২৬) ও অন্য বাসের চালকের সহকারী মো. শাহাদাত (২২)।

সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বায়েজিদ বোস্তামী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান।

তিনি জানান, ‘ওই গৃহবধূ নগরীর ডবলমুরিং থানাধীন ইসলামীয়া ব্যাংক এলাকায় ভাড়া থাকেন। গত ১৮ জুন জুতা কেনার জন্য দেওয়ানহাট এলাকায় একটি দোকানে তার স্বামীসহ যান। সেখানে দোকানদারের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ওই গৃহবধূ ও তার স্বামীকে মারধর করে দোকানিসহ তার লোকজন। এ ঘটনায় মামলা করার জন্য ভিকটিম বায়েজিদ থানাধীন চিহ্নমূলের বাসিন্দা চাচা মো. ফারুকের (আদালতের মুন্সি) বাসায় যান। রোববার দুপুরে ভুক্তভোগী আত্মীয়ের বাসা থেকে অক্সিজেন মোড়ে আসেন। সেখানে রেলবিটের পাশে চট্ট মেট্রো-জ-১১-০১৬৯ বাসটি পার্কিং করা ছিল। এ সময় বাসের চালক নুরুল আলম, হেলপার রবিউল, সুপারভাইজার রাজু ও অন্য বাসের হেলপার শাহাদাত তাকে জিজ্ঞেস করেন, ‘আপনি কোথায় যাবেন’। কোর্ট বিল্ডিংয়ে যাওয়ার কথা বললে, তারা তাকে বাসে তোলেন। তবে কোনো যাত্রী না থাকায় পরিবহন শ্রমিকরা বাসটি অক্সিজেন মোড়ের পাশে কেডিএস ভবনের বিপরীত পাশে নিয়ে যায়।

এরপর বাসের দরজা বন্ধ করে রবিউল, রাজু ও নুরুল আলম ওই নারীকে ধর্ষণ করে। এ সময় শাহাদাত তাদের সহযোগিতা করে।

তিনি আরও জানান, ঘটনার পর ভুক্তভোগী অক্সিজেন পুলিশ বক্সে অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অভিযুক্ত শাহাদাত হোসেনকে অক্সিজেন এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাকিদের রাতেই গ্রেফতার করা হয়। তাদের আদালতে সোর্পদ করা হয়। 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়