যশোরে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য  বিক্রি করায় জরিমানা

OnlineStaff OnlineStaff
প্রকাশিত: ১১:৫০ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০২১

যশোর প্রতিনিধি : যশোরে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি ও ক্রয় রশিদ না থাকায় ছয়টি প্রতিষ্ঠানকে ১৩ হাজার পাঁচশ’ টাকা জরিমান করা হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর কর্মকর্তারা শহরের দড়াটানা মোড় ও বড়বাজারে তদারকি মূলক এ অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ না থাকা ও বিএসটিআইয়ের অনুমোদন ছাড়াই চা-পাতা মোড়কীকরণ ও বিক্রয়ের অভিযোগে নিউ স্টার টি হাউজকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়াও দোকানে মূল্য তালিকা না থাকায় সামাদ ভান্ডারকে দু’হাজার টাকা, বিপ্লব স্টোরকে দু’হাজার টাকা, গীতা স্টোরকে দেড় হাজার টাকা, মজনু-ভোলার মাংসের দোকানে এক হাজার টাকা ও মেয়াদোত্তীর্ণ সেমাই বিক্রির অভিযোগে নাসিম স্টোরকে দু’হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

 এ সময় বাজারের সকল মুদি, চাল, মুরগী ও মাংসের দোকানে হালনাগাদ মূল্য তালিকা প্রদর্শন করা এবং ন্যায্যমূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রি করার নির্দেশনা দেয়া হয়। একই সাথে ব্যবসায়ী ও জনসাধারণকে মাস্ক ব্যবহার ও দূরত্ব বজায় রেখে বেচাকেনার নির্দেশনা দেয়া হয়। অভিযানে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর যশোরের উপ-পরিচালক ওয়ালিদ বিন হাবিব, কৃষি বিপণন অধিদপ্তর যশোরের মাঠ ও বাজার পরিদর্শক মোহাম্মদ কুতুবউদ্দীন, ক্যাবের সদস্য আব্দুর রাকিব সরদার, সদর পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর তুষার কান্তি মন্ডল ও জেলা পুলিশের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন। জনস্বার্থে এমন অভিযান চলমান থাকবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর যশোরের উপ-পরিচালক ওয়ালিদ বিন হাবিব।