অসহায় জান্নাতুল ফিরদৌস লিমার সংবাদ সম্মেলন এস আই আনোয়ার হোসেনের হয়রানি থেকে রক্ষা পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

Staff Reporter Staff Reporter
প্রকাশিত: ০৭:১৪ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাক অফিস:: পুলিশের এস আই আনোয়ার হোসেন তার পরিবার ও সহযোগীদের দ্বারা  মিথ্যা মামলায়  হয়রানি ও  নানা হুমকি  থেকে রক্ষা পেতে   মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অসহায় জান্নাতুল ফিরদৌস লিমা ও তার পরিবার ।  গতকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিিিটর সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে  লিখিত বক্তব্যে এস আই আনোয়ার হোসেনের সাবেক স্ত্রী জান্নাতুল ফিরদৌস লিমা এ আহবান জানান।
  লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন,  আজ আমি এবং আমার শান্তিপ্রিয় পরিবার এক কঠিন যন্ত্রণার মধ্যে আছি। শুনলে অবাক হবেন যে, মানুষ যখন বিপদগ্রস্থ হয়ে পুলিশের দারস্থ হয়, তখন সেই পুলিশ বিপদগ্রস্থ মানুষটির সার্বিক নিরাপত্তা দেয়। অথচ সেই পুলিশ বিভাগে এক সন্ত্রাসীর আচরণের পুলিশ সদস্যই আমার এবং আমার পরিবারের জীবনকে নরক বানিয়েছে। আর আমি যার জন্য এখন সার্বক্ষনিক এক কন্যা সন্তানকে নিয়ে ভীতিকর অবস্থায় জীবন যাপন করছি। এস আই  আনোয়ার হোসেনের বাড়ি লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার মধ্য ইসলামপুর গ্রামে। তিনি এখন কর্মরত আছেন পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের শেরপুর জেলায়।

আত্মীয়তার সুবাধে এই পুলিশ সদস্যের যাতায়াত ছিল আমাদের রংপুরস্থ পূর্ব খাসবাগের বাড়িতে। এই সুবাধে আনোয়ার আমার পরিবারের অগোচরে আমাকে বিভিন্নভাবে ভুলিয়ে এবং নানা প্রলোভন দেখিয়ে পালিয়ে বিয়ে করে। আমি আমার পরিবারের একমাত্র মেয়ে হওয়ায় আমার সুখের কথা ভেবে আমার পরিবার এ বিয়ে মেনে নিলেও বিয়ের এক বছরের মাথায় আনোয়ারের খারাপ আচরণের দিকগুলো আমার কাছে ধরা পড়ে। আমার পরিবারের কাছে মোটা অংকের যৌতুক দাবি, নারী লোভীতা, এমন কোন অন্যায় কর্ম নেই যা তিনি করতেন না। এসব করেই সে যখন কালো টাকা আর সম্পদের পাহাড় গড়তে থাকেন তখন আমি এর প্রতিবাদ করতে গিয়েই আজ আমার এই পরিণতি।

বলতে গেলে নরপশু গোচের এই আনোয়ার চাইলেই আমাকে তালাক দিতো আবার নিতো। আমার উপর শারীরিকভাবে এমন নির্যাতন চালাতো, যা আপনাদের সামনে বলা সম্ভব না। এসব করেই সে আমাকে সংসার ছাড়া করেছে ।তার এমন সব অপকর্মের প্রতিবাদ করতে গেলেই আমাদের পরিবারের উপর নেমে আসে তার নির্মমতার খরগ। যার অন্যতম উদাহরণ  ২০১৮ সালে আমার খালাতো ভাই হাবিবুর রহমান বিপ্লবকে প্রকাশ্য দিবালোকে সন্ত্রাসী ষ্টাইলে মারধর করে জখম করে। এই শোক আর যন্ত্রণায় কিছুদিন পর সেই ভাইটি আমার মারা যায়।

জান্নাতুল ফিরদৌস লিমা বলেন  বিপদগামী পুলিশ সদস্য এস আই আনোয়ারসহ তার সহযোগীদের   ভয়ে আমরা বাড়ি ছাড়া। রাষ্ট্রের সাধারণ নাগরিক হিসেবে আমাদের কি শান্তিপূর্ণভাবে বসবাসের অধিকার নেই?  তিনি ভাই হত্যার বিচারের পাশাপাশি দুষ্কৃতকারী বিপদগামী পুলিশ সদস্য এস আই আনোয়ারসহ তার সহযোগীদের শাস্তির দাবি জানিয়ে   মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  দৃষ্টি  আকর্ষণ করেন।  সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন জান্নাতুল ফিরদৌস লিমার ভাই  হাসানুজজামান ,খালা  মর্জিনা বেগম  ও খালাতো ভাই বিজয় আহ্েম্মদ ।