লো-স্কোরিং ম্যাচে মাহামুদুল্লাহদের জয়

Online Desk Saju Online Desk Saju
প্রকাশিত: ০৮:৩৬ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০২০

১০৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ০ রানে ৩ উইকেট হারালেও, মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায় প্রেসিডেন্টস কাপে প্রথম জয় পেয়েছে মাহমুদউল্লাহ একাদশ। মুমিনুল হকের ৩৯ এবং নুরুল হাসানের অপরাজিত ৪১ রানের ওপর ভর করে ৫ উইকেটের জয় পেয়েছে দলটি। তামিম একাদশের হয়ে সাইফউদ্দিন এবং তাইজুল ইসলাম নেন সর্বোচ্চ ২টি উইকেট। 

১০৪ রানের মামুলি লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারে কোন রান নিতে পারেনি মাহমুদউল্লাহ একাদশ। দ্বিতীয় ওভারে প্রথম বলেই নাঈম শেখকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন মুস্তাফিজুর রহমান।

নাঈম ০ রানে ফেরার পর তৃতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলে সাইফউদ্দিনের ভেতরে আসা বলে বোল্ড হন লিটন। তিনিও ফেরেন ০ রানে। একই ওভারে তিন বল পর কভারে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ইমরুল কায়েস। ০ রানে ৩ উইকেট হারানো দলটিকে বিপদ থেকে টেনে তোলার লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে থাকেন মাহমুদউল্লাহ এবং মুমিনুল।

দুজন মিলে এই জুটি ৩৯ রান যোগ করলেও তাইজুল ইসলামের বলে ১০ রানে বোল্ড হন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। অধিনায়ক ফিরলেও নুরুল হাসানকে সঙ্গে নিয়ে রান বাড়াতে থাকেন মুমিনুল। কিন্তু ৭৭ রানে তাইজুলের বলেই ইনসাইড এজে ফেরেন তিনি। ৩৯ রান আসে তাঁর ব্যাট থেকে।

৫ উইকেট হারালেও সাব্বির রহমানকে সঙ্গে নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান নুরুল। ২০ ওভার বাকি থাকতে প্রথম জয় তুলে নেয় মাহমুদউল্লাহ একাদশ। এর আগের ম্যাচে নাজমুল একাদশের কাছে হেরেছিল দলটি।

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নামা তামিম একাদশ অল আউট হয় ১০৩ রানে। সর্বোচ্চ ২৫ রান এসেছে এনামুল হক বিজয় এবং তানজিদ তামিমের ব্যাট থেকে। মাহমুদউল্লাহর দলের হয়ে ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন রুবেল হোসেন এবং সুমন খান।

মেহেদি মিরাজ এবং আমিনুল ইসলাম নিয়েছেন ২টি করে উইকেট। মাঝে বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ ছিল এক ঘণ্টা ৪৫ মিনিট। যে কারণে ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমিয়ে আনা হয়েছে ৪৭ ওভারে। জিততে হলে ৪৭ ওভারে ১০৪ করতে হবে মাহমুদউল্লাহ একাদশকে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

তামিম একাদশঃ ১০৩ অল আউট (২৩.১ ওভার) (তামিম ২, তানজিদ ২৫, আনামুল ২৫, মিঠুন ০, দিপু ১, মোসাদ্দেক ৫, সাইফউদ্দিন ১২, মেহেদি হাসান ১৯, তাইজুল ১, শরিফুল ৪, মুস্তাফিজ ০*; রুবেল ৩/১৬, সুমন ৩/৩১, আমিনুল ২/১৭, মিরাজ ২/২)

মাহমুদউল্লাহ একাদশঃ ১০৬/৫ (২৭ ওভার) (লিটন ০, নাঈম ০, ইমরুল ০, মুমিনুল ৩৯, নুরুল ৪১, সাব্বির ৪; সাইফউদ্দিন ২/৮, মুস্তাফিজ ১/১৪, তাইজুল ২/২৭)


আরও পড়ুন