তামিমের লাইভ আড্ডায় কোহলি

Online Desk Saju Online Desk Saju
প্রকাশিত: ০১:৩৭ পিএম, ১৯ মে ২০২০

তামিমের আড্ডায় এবারের সঙ্গী বিশ্বসেরা কোহলি। কিন্তু, আড্ডা ভুলে যেনো ছোটোখাটো ভার্চুয়াল ক্লাস হলো, কোহলি বললেন তার বিশ্ব সেরা হওয়ার পেছনের গল্প, আর মনোযোগী ছাত্রের মতই শুনে গেলেন তামিম। টার্গেট তাড়ায় সাফল্যের রহস্য জানিয়েছেন কোহলি, দিয়েছেন পরামর্শ। ভিরাট কোহলির পর তামিমের আড্ডায় আজকের অতিথি আকরাম-নান্নু-পাইলটের সঙ্গে কিংবদন্তী ওয়াসিম আকরাম।

শুধু ক্রিকেটের নয়, ক্রীড়াঙ্গনের মহাতারকা ভিরাট কোহলি। নির্খুত টেকনিক-দুর্দান্ত টেম্পারমেন্ট আর অ্যাগ্রেসন তাকে পৌঁছে দিয়েছে অন্য উচ্চতায়। কেন তিনি সেরাদের সেরা, তার খানিকটা শোনালেন তামিমের ডাকে।

ভারতের অধিনায়ক ভিরাট কোহলি বলেন, মেন্টাল প্রসেস যথেষ্ট সিম্পল থাকে। মাঝে মাঝে উইকেটের পেছন থেকে মুশফিকদের স্লেজিংয়ে আরো ভালো খেলতে অনুপ্রাণিত হই। শ্রীলঙ্কায় ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেয়। তখন থেকে বিশ্বাস করি জাতীয় দলে দীর্ঘদিন সার্ভিস দিতে পারবো। ব্যর্থতায় মাথা নত করেননি কখনো, শুধু সামনে এগোনোর মন্ত্র খুঁজেছেন। টেকনিকে বদল এনেছেন, তাতে লাভও হয়েছে। আর এই কঠিন মিশনে কাজে দিয়েছে অনেকের পরামর্শ।

ভিরাট কোহলি বলেন, আমি গ্রাউন্ডের চারপাশে খেলতে চাইতাম। স্ট্যান্স পজিশন থেকে ব্যাক অ্যান্ড অ্যাক্রোস আমাকে ভালো পারফর্মে সাহায্য করেছে। ব্যাটিংয়ের ধার বাড়াতে পরিস্থিতি বুঝে টেকনিকে বদল আনা ভালো।

তিনি আরো বলেন, যখন চেজ করে ভারত হারতম তখন ঘুমাতে যেয়ে ভাবতাম ওই জায়গায় আমি হলে ম্যাচ জিতিয়ে দিতাম। টার্গেটে খেললে হিসেব সহজ, যেখানে থাকে লক্ষ্য কত এবং সেটি অর্জন করতে কী কী করতে হবে। এটির চেয়ে স্পষ্ট চিত্র আর কিছু নেই।

লকডাউনে ভিরুস্কা জুটির সময়টা দারুন কাটছে, করোনা সংকটের এই সময় পরিবারের সঙ্গে উপভোগ করতে বলছেন কোহলি। লাল-সবুজের সমর্থকদের জানিয়েছেন অগ্রীম ঈদ শুভেচ্ছা।

সর্বকালের সেরা হওয়ার পথে এগোচ্ছেন কোহলি, তিনি তরুণদের রোল মডেল। তার ছোট্ট পরামর্শও হতে পারে আগামীর প্রেরণা।


আরও পড়ুন