বেতন চাওয়ায় মাদ্রাসা শিক্ষককে কোপালো ছাত্রের বাবা

Online Desk Saju Online Desk Saju
প্রকাশিত: ০৮:৪৮ এএম, ১৬ জুন ২০২০

ফেনী শহরে এক ছাত্রের অভিভাবকের কাছে বকেয়া বেতন চাওয়ায় ধারালো ছুরি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করেছেন ছাত্রের বাবা।

আহত শিক্ষক পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডে অবস্থিত দারুল ঈমান ইসলামী মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও স্থানীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মামুনুর রশীদ। ১৫ মে রোববার বিকালে মাদ্রাসার সামনে এই হামলা চালানো হয়। হামলাকারী ফেনী শহরের পূর্ব উকিল পাড়ার মুন্সি পুকুরের পূর্ব পাশের আবুল বশরের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম। তাকে আসামি করে মাদ্রাসা শিক্ষক বাদি হয়ে ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আহত মাদ্রাসা শিক্ষক জানান, জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে ওয়াছি আলম (শান্ত) ওই মাদ্রাসায় প্লে থেকে ষষ্ঠ শ্রেনী পর্যন্ত পড়ালেখা করে। চলতি বছর ফেনী ফালাহিয়া মাদ্রাসায় ৭ম শ্রেনিতে ভর্তি হয়। বিদায়ী ছাত্রের দু'মাসের প্রায় ৮ হাজার টাকা 'আবাসিক' বকেয়া বেতন চান শিক্ষক মামুনুর রশিদ। বকেয়া বেতন চাওয়ার পর থেকে সে প্রিন্সিপালের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে ও ফেসবুকে প্রিন্সিপালের পোস্টে অরুচিকর কমেন্ট করে। প্রিন্সিপাল কমেন্ট করে প্রতি উত্তর দিলে সে আরো বেশি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। তার জের ধরে  মাদরাসা প্রাঙ্গণে তার উপর প্রকাশ্যে হামলা করে জাহাঙ্গীর।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত হামলার কারীর ছবি ও সিসিটিভি ফুটেজ ইতোমধ্যে পুলিশ  উদ্ধার করেছে । ভুক্তভোগী হাফেজ মাওলানামামুনুর রশীদ সদর উপজেলার গোবিন্দপুরের বাসিন্দা।

ফেনী মডেল থানার ওসি অপারেশন্স মোহাম্মদ আলী জানান, অভিযুক্তকে ধরতে পুলিশি অভিযান চলছে।


আরও পড়ুন