চট্টগ্রামে চামড়া সংগ্রহে ধস, ক্ষতির শঙ্কা

Online Desk Saju Online Desk Saju
প্রকাশিত: ১১:৩৯ এএম, ২২ জুলাই ২০২১


বন্দরনগরী চট্টগ্রামে চামড়া সংগ্রহে মারাত্বক ধস নেমেছে। সাড়ে তিন লাখ লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে সংগ্রহ হয়েছে মাত্র দুই লাখ পিস কোরবানির পশুর চামড়া। এর মধ্যে ঢাকার ট্যানারি মালিকরা সরকার নির্ধারিত দরে চামড়া না কিনলে ক্ষতির মুখে পড়ার শঙ্কা করছেন আড়তদাররা।

বৃহত্তর চট্টগ্রাম চামড়া আড়তদার সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ মুসলিম বলেন, দেশের চামড়ার বাজারে সরবরাহে এককভাবে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখে চট্টগ্রাম। কিন্তু এবার করোনাসহ নানা জটিলতায় তুলনামূলক পশু কোরবানির কম হওয়ায় চামড়া সংগ্রহের পরিমাণও অর্ধেকে নেমে এসেছে।

সাড়ে ৩ লাখ পিস চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও সংগ্রহ হয়েছে মাত্র দুই লাখ পিস চামড়া। অথচ ২০২০ সালে ৪ লাখ এবং ২০১৯ সালে ৫ লাখ পিস চামড়া সংগ্রহ হয়েছিল এখানকার আড়তে।

চামড়া আড়তদার মোহাম্মদ আলী বলেন, প্রতি বছরই চামড়া সংগ্রহ নিয়ে এখানকার আড়তদারদের নানামুখী জটিলতায় পড়তে হয়। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। কোরবানির দিন যেমন দর নিয়ে কারসাজি হয়েছে তেমনি এখন শঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে প্রকৃত দর পাওয়া নিয়েও।

বৃহত্তর চট্টগ্রাম চামড়া আড়তদার সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ এবার ঈদে তুলনামূলক কম পশু কোরবানি হওয়া কথা জানান।

চামড়া আড়তদার মোহাম্মদ আইয়ুব বলেন, তবে গত দু'বছর ধরে দর না পাওয়ায় বিপুল পরিমাণ চামড়া রাস্তায় নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। এবার সে তৎপরতা ঠেকাতে তৎপর ছিল সরকারি নানা প্রশাসন। তারপরেও কিছু চামড়া নষ্ট হওয়ার তথ্য পাওয়া গেছে।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্যাহ বলেন, চট্টগ্রামে ছোট বড় ২২৫টি আড়তে চামড়া সংরক্ষণ হলেও ট্যানারি রয়েছে মাত্র ১টি। এতে সংকট সৃষ্টি হয়।


 


আরও পড়ুন