ট্রাক-প্রাইভেটকার সংঘর্ষ, চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ নিহত ২

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০৪:১১ পিএম, ১৭ মার্চ ২০২১

বরগুনার আমতলী-পটুয়াখালী-কুয়াকাটা আঞ্চলিক মহাসড়কের মহিষকাটা বাসস্ট্যান্ডের দক্ষিণ পাশে ট্রাক ও প্রাইভেটকার মুখোমুখি সংঘর্ষে চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ দু’জন নিহত হয়েছেন। অপর আরোহী ব্যবসায়ী মো. আনোয়ারুল হক সাগর গুরুতর আহত হয়েছেন।


পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) রাত সাড়ে ৯টার দিকে একটি প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো-গ ২৯-৬৩৪১) যোগে বরিশালের মুলাদি উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের ওবায়দুল শিকদারের ছেলে ও ওই ইউনিয়নের (স্বতন্ত্র) চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. তৌফিক শিকদার (৪০), কলাপাড়া উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক তুহিন মৃধা (৩৫) এবং ব্যবসায়ী মো. আনোয়ারুল হক সাগর পটুয়াখালী যাচ্ছিলেন।

পথে আমতলী-পটুয়াখালী-কুয়াকাটা সড়কের মহিষকাটা বাসস্ট্যান্ডের কাছাকাছি পৌঁছলে প্রাইভেটকারটি একটি টমটমকে (টেম্পু) সাইড দিতে গিয়ে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকের (ঢাকা মেট্রো-ট ২০-২০৩৪) সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে প্রাইভেটকারটির সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই চালক তৌফিক ও আরোহী তুহিন নিহত হন। গুরুতর আহত হন প্রাইভেটকারের অপর আরোহী আনোয়ারুল।

খবর পেয়ে আমতলী থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহায়তায় নিহত দু’জনের মরদেহ দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া প্রাইভেটকার থেকে থেকে বের করে আনেন এবং গুরুতর আহত একজনকে উদ্ধার করে প্রথমে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে আশংকাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে পাঠান।

দুর্ঘটনার পর ওই সড়কে প্রায় আধা ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ ছিল। পরে পুলিশ গিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহ আলম বলেন, ‘সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত দু’জনের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছি। গুরুতর আহত একজনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছি। ’


আরও পড়ুন