এমআরটি লাইন-১ এর ভূমি উন্নয়নে ৬০৭ কোটি টাকার চুক্তি

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ০৪:২২ দুপুর
আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ০৪:২২ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

এমআরটি লাইন-১ এর ভূমি উন্নয়নে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান টোকিও কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লি. (জাপান) এবং ম্যাক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেডের (বাংলাদেশ) সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল)। চুক্তি অনুযায়ী ৬০৭ কোটি ৬৫ লাখ টাকায় কন্ট্রাক্ট প্যাকেজ-১ এর আওতায় নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলার পিতলগঞ্জ মৌজায় ৮৮.৭১ একর এলাকার ভূমি উন্নয়ন করা হবে।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে ডিএমটিসিএলের পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এম এ এন সিদ্দিক ও টোকিও কনস্ট্রাকশনের নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিভাগীয় ব্যবস্থাপক মাসাকাজু কনিশী চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, এটা অনেক বড় প্রকল্প। এর মোট ব্যয় ৫২ হাজার ৫৬১ কোটি টাকা। আজ থেকে প্রথম ফেজের কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে পিতলগঞ্জ এলাকায় মেট্রোরেলের ডিপো ভূমি উন্নয়নের কাজ শুরু হবে। আমি এই কাজের সাফল্য কামনা করছি। বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি বলেন, এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আসতে পেরে আমি আনন্দিত। এই চুক্তির মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জের পিতলগঞ্জ এলাকায় মেট্রোলের ভূমি উন্নয়নের কাজ শুরু হবে। জাপান বাংলাদেশের বন্ধুপ্রতীম দেশ। আগামীতে বাংলাদেশ-জাপান সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে।

জানা গেছে, চুক্তি অনুযায়ী ভূমি উন্নয়ন কাজের পদ্ধতি ও বাস্তবায়নকালের ওপর ভিত্তি করে পুরো এলাকাকে মোট ছয়টি জোনে বিভক্ত করা হবে। এই কাজে স্ট্যাটিক সেন্ড কম্প্যাকশন পাইল, ডায়নামিক সেন্ড কম্প্যাকশন পাইল, প্রি-ফেব্রিকেটেড ভার্টিক্যাল ড্রেনের মতো আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে। ডিপোর ভূমি উন্নয়নের কাজ শেষ হলে ওই এলাকায় কন্ট্রাক্ট প্যাকেজ ২ এর আওতায় ডিপোর প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণ এবং ইলেক্ট্রিক্যাল ও ম্যাকানিক্যাল সিস্টেম স্থাপন করা হবে। এমআরটি লাইন-১ এর বিমানবন্দর রুট ও পূর্বাচল রুটে চলাচলকারী সব মেট্রোট্রেন এই ডিপোর সুবিধাগুলো ব্যবহার করবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়