শুভ জন্মাষ্টমী বৃহস্পতিবার

৩ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা

প্রকাশিত: আগস্ট ১৭, ২০২২, ০৯:৩৬ রাত
আপডেট: আগস্ট ১৭, ২০২২, ০৯:৩৬ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা অফিস : ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মতিথি শুভ জন্মাষ্টমী আগামীকাল বৃহস্পতিবার। সনাতন ধর্মানুসারে, শ্রীকৃষ্ণ অত্যাচারীর বিরুদ্ধে দুর্বলের অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং দুষ্টের দমন ও শিষ্টের লালন করতেই এ পৃথিবীতে আবির্ভূত হয়েছিলেন। শান্তিহীন পৃথিবীতে শান্তি আনতেই শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব। দ্বাপর যুগের শেষ দিকে এই মহাপুণ্য তিথিতে মথুরা নগরে অত্যাচারী রাজা কংসের কারাগারে বন্দি দেবকী ও বাসুদেবের বেদনাহত ক্রোড়ে জন্ম নিয়েছিলেন পরমেশ^র ভগবান শ্রীকৃষ্ণ। হিন্দু পুরান মতে, ভাদ্র মাসের শুক্লপক্ষের অষ্টমী তিথিতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ জন্মগ্রহণ করেন। 

হিন্দু সম্প্রদায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে জন্মাষ্টমী পালন করবেন। এ উপলক্ষে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। জন্মাষ্টমী উপলক্ষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনসহ বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেলে সম্প্রচারিত হবে বিশেষ অনুষ্ঠান। 

শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতি জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এছাড়া এক বাণীতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতি জন্মাষ্টমীর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। 

জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ও মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটি কেন্দ্রীয়ভাবে তিনদিনের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। আজ বুধবার (১৭ আগস্ট) ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- আগামীকাল বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় এবং প্রধানমন্ত্রীর সাথে ভার্চুয়ালি শুভেচ্ছা বিনিময়। পরদিন শুক্রবার (১৯ আগস্ট) সকালে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় গীতাযজ্ঞ, বিকেলে ঐতিহাসিক জন্মাষ্টমী শোভাযাত্রা ও রাতে তিথি অনুযায়ী কৃষ্ণ পূজা। তৃতীয় দিনে ২০ আগস্ট বিকেলে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। 

ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে সংবাদ সম্মেলনে পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জেএল ভৌমিক, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. চন্দ্রনাথ পোদ্দার, মহানগর কমিটির সভাপতি মনীন্দ্র কুমার নাথ ও সাধারণ সম্পাদক রমেন মন্ডলসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

এদিকে আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) জন্মাষ্টমী উপলক্ষে স্বামীবাগ আশ্রমে বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে। এছাড়া রাজধানীর রামকৃষ্ণ মিশন, স্বামী ভোলানন্দ গিরি আশ্রম, প্রভু জগদবন্ধু মহাপ্রকাশ মঠ, রাধামাধব জিও দেব বিগ্রহ মন্দির, বরদেশ্বরী কালীমাতা মন্দির ও শ্মশান, রাধা গোবিন্দ জিও ঠাকুর মন্দির, শিব মন্দির, রামসীতা মন্দির ও মাধব গৌড়ীয় মঠসহ বিভিন্ন মন্দির, পূজামন্ডপ ও ধর্মীয় সংগঠন জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করবে। 

বন্ধ থাকবে যেসব সড়ক : জন্মাষ্টমী উপলক্ষে শুক্রবার বিকেলে মূল শোভাযাত্রা ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির থেকে শুরু হয়ে বাহাদুর শাহ পার্কে গিয়ে শেষ হবে। শোভাযাত্রা চলাকালীন যানজট পরিহারের লক্ষ্যে ওই এলাকায় চলাচলরত গাড়িচালক বা ব্যবহারকারীদের ওইদিন বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কিছু রুট পরিহারের জন্য অনুরোধ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। বুধবার ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলামের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। 

এছাড়া শোভাযাত্রার নিরাপত্তা প্রসঙ্গে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শোভাযাত্রায় শুরু থেকে মিলিত হতে হবে, কোনোক্রমেই শোভাযাত্রার মাঝপথ দিয়ে কোনো ব্যক্তি শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না। নিরাপত্তার স্বার্থে হ্যান্ডব্যাগ, ট্রলিব্যাগ, বড় কোনো ব্যাগ, পোটলা, দাহ্যপদার্থ, ছুরি, অস্ত্র, কাঁচি, ক্ষতিকারক তরল, ব্লেড, দিয়াশলাই, গ্যাসলাইট ইত্যাদি সঙ্গে নিয়ে শোভাযাত্রায় অংশ নেওয়া যাবে না। 

ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির-পলাশী বাজার-জগন্নাথ হল-কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার-দোয়েল চত্বর-হাইকোর্ট-বঙ্গবাজার-ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ভবন-গোলাপ শাহ মাজার-গুলিস্তান মোড়-নবাবপুর রোড-রায় সাহেববাজার মোড় হয়ে বাহাদুর শাহ পার্ক পর্যন্ত। নগরবাসীকে এসব রুট পরিহারের জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। 

এছাড়া শোভাযাত্রার নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার জন্য সবাইকে ১০টি নির্দেশনা মেনে চলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। 

 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়