আল্লাহর সার্বভৌমত্বের ভিত্তিতে সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে  জাতীয় ঐক্যের ডাক দিলেন ইসলামী সমাজের আমীর

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০৩:০০ এএম, ০৩ মার্চ ২০২১

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :  ইসলামী সমাজের আমীর হযরত সৈয়দ হুমায়ূন কবীর বলেছেন, সমাজ ও রাষ্ট্র পরিচালনায় আল্লাহ্ প্রদত্ত জীবন ব্যবস্থা ‘ইসলাম’ প্রতিষ্ঠিত না থাকায় সুশাসন ও ন্যায় বিচার এবং মৌলিক অধিকার থেকে মানুষ আজ বঞ্চিত। দুর্নীতি, সন্ত্রাস, মাদক, ধর্ষণ, গুম ও খুনসহ মানবতা বিরোধী সকল অপরাধ দিনদিন বেড়েই চলছে। মানব রচিত ব্যবস্থা মেনে চলার কারণে মানুষের আখিরাতের জীবনও ধ্বংশ হচ্ছে। এহেনো নাজুক পরিস্থিতিতে দুনিয়ায় কল্যাণ, শান্তি এবং আখিরাতে মুক্তির লক্ষ্যে সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠার জন্য “মানুষের নয়! সার্বভৌমত্ব, আইন-বিধান ও নিরংকুশ কর্তৃত্ব একমাত্র আল্লাহর”- এ মহাসত্যের ভিত্তিতে জাতীয় ঐক্য গঠন করতে হবে। 

আজ ২ মার্চ ২০২১ ইং ইসলামী সমাজের উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় সকল মানুষের সার্বিক কল্যাণে সমাজ ও রাষ্ট্রে ‘ইসলাম’ প্রতিষ্ঠায় আল্লাহর’ই সার্বভৌমত্বের ভিত্তিতে জাতীয় ঐক্য গঠণে কর্মসূচী ঘোষণা করার লক্ষ্যে সকাল ১১ টায় অনুষ্ঠিত বিশেষ মানব বন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংগঠনের আমীর বলেন, সকল ধর্মের লোকদের জন্য যার যার ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলার সুযোগ রেখে সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠিত না হলে মানব জীবনের কোন সমস্যারই সমাধান হবে না, হচ্ছেও না! এজন্য দলমত নির্বিশেষে সকল মানুষের সার্বিক কল্যাণে সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সকলকে আল্লাহর সার্বভৌমত্বে ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। ইসলামী সমাজ রাসূল মুহাম্মাদ (সাঃ) এর প্রদর্শিত শান্তিপূর্ণ পদ্ধতিতে সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠার আন্তরিক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠার ঈমানী ও নৈতিক দায়িত্ব পালনের লক্ষ্যে ইসলামী সমাজে শামিল হয়ে সকলকে তিনি ঐক্যবদ্ধ শান্তিপূর্ণ আন্দোলন গড়ে তুলার আহ্বান জানান।

এসময় তিনি সমাজ ও রাষ্ট্রে ইসলাম প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কর্মসূচী ঘোষণা করেন- (১) দেশব্যাপী গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ। (২) ১০ই মার্চ ২০২১ ইং, রোজ: বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের অডিটরিয়ামে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা সভা। (৩) মার্চ ২০২১ ইং সালের শেষ ১০ দিন বিভাগীয় শহর ও জেলা শহর সমূহে আলোচনা সভা। ঘোষিত কর্মসূচী বাস্তবায়নে সরকার ও প্রশাসনসহ দেশবাসী সকলের আন্তরিক সমর্থন ও সহযোগীতা তিনি প্রত্যাশা করেন।

কেন্দ্রীয় নেতা মুহাম্মাদ ইয়াছিনের পরিচালনায় মানব বন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন মুহাম্মাদ ইউসুফ আলী মোল্লা, সোলাইমান কবীর প্রমুখ। মানব বন্ধন শেষে দেশ ও জাতির সার্বিক কল্যাণে দোয়া ও মুনাজাত করা হয় এবং বিভাগীয় দায়িত্বশীলগণের নেতৃত্বে ১২টি টিম রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন রাস্তায় লিফলেট বিতরণ ও গণসংযোগ করেন।